avatar
+২ টি ভোট

গোলকের পৃষ্ঠতলের ক্ষেত্রফল নির্ণয়ের সূত্র কি?

গোলকের পৃষ্ঠতলের ক্ষেত্রফল নির্ণয়ের সূত্র হল:

S = 4πr²


যেখানে:

  • S হল গোলকের ক্ষেত্রফল
  • π হল পাই ধ্রুবক, যার মান প্রায় 3.14159
  • r হল গোলকের ব্যাসার্ধ


এই সূত্রটি প্রথম আর্কিমিডিস দ্বারা আবিষ্কৃত হয়েছিল। তিনি দেখিয়েছিলেন যে একটি গোলকের ক্ষেত্রফল চারটি বৃত্তের ক্ষেত্রফলের সমান, যেখানে প্রতিটি বৃত্তের ব্যাসার্ধ গোলকের ব্যাসার্ধের সমান।


গোলকের ক্ষেত্রফলের সূত্রটি বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়। উদাহরণস্বরূপ, এটি একটি গোলকের পৃষ্ঠের ক্ষেত্রফল নির্ণয় করতে ব্যবহার করা যেতে পারে, বা একটি গোলাকার বস্তুকে রং করতে প্রয়োজনীয় রঙের পরিমাণ নির্ণয় করতে ব্যবহার করা যেতে পারে।

1 টি উত্তর

avatar
+৩ টি ভোট
S = 4πr²


যেখানে:

  • S হল গোলকের পৃষ্ঠতলের ক্ষেত্রফল
  • π হল পাই ধ্রুবক, যার মান প্রায় 3.14159
  • r হল গোলকের ব্যাসার্ধ

এরকম আরও প্রশ্ন

avatar
+২ টি ভোট
বিন্দুর ভুজ এবং কোটি কাকে বলে? (x, y) এর মধ্যে কোনটি কোটি এবং কোনটি ভূজ?
ভুজ হলো একটি বিন্দুর x-অক্ষ বরাবর দূরত্ব এবং কোটি হলো একটি বিন্দুর y-অক্ষ বরাবর দূরত্ব।

সমতলে একটি বিন্দুর অবস্থান নির্ণয়ের জন্য x-অক্ষ এবং y-অক্ষ নামে দুটি ঋজু অক্ষকে পরস্পরকে 90 ডিগ্রি কোণে ছেদ করা হয়। এই অক্ষ দুটিকে কার্টেসিয়ান অক্ষ বলা হয়।

কোনো বিন্দুকে এই অক্ষ দুটিতে ছেদ করে যে দুটি রেখাংশ উৎপন্ন হয়, সে দুটি রেখাংশকে বিন্দুর স্থানাঙ্ক বলা হয়।

একটি বিন্দুর স্থানাঙ্ককে (x, y) দ্বারা প্রকাশ করা হয়, যেখানে x হলো বিন্দুর x-অক্ষ বরাবর দূরত্ব (ভুজ) এবং y হলো বিন্দুর y-অক্ষ বরাবর দূরত্ব (কোটি)।

উদাহরণস্বরূপ, (3, 4) স্থানাঙ্কবিশিষ্ট একটি বিন্দু x-অক্ষ বরাবর 3 একক এবং y-অক্ষ বরাবর 4 একক দূরত্বে অবস্থিত। সুতরাং (3, 4) বিন্দুর ভুজ হল 3 এবং কোটি হল 4

কোটি এবং ভুজ উভয়ই ধনাত্মক বা ঋণাত্মক হতে পারে।

কোটি এবং ভুজের সাহায্যে একটি বিন্দুর অবস্থান নির্ণয় করা যায়।
avatar
+২ টি ভোট
সহমৌলিক সংখ্যা কাকে বলে?

দুইটি সংখ্যার সাধারণ গুণনীয়ক শুধু ১ হলে সংখ্যাগুলো পরস্পর সহমৌলিক।


উদাহরণস্বরূপ, ৫ এবং 12, এদের মধ্যে ১ ছাড়া কোনো সাধারণ উৎপাদক নেই। সুতরাং, ৫ ও 12 পরস্পর সহমৌলিক।


দুইটি মৌলিক সংখ্যা সর্বদা সহ-মৌলিক হবে। এছাড়া একটি মৌলিক সংখ্যা এবং একটি যৌগিক সংখ্যা ও সহ-মৌলিক হতে পারে। যেমনঃ ৭ এবং ১২। দুইটি যৌগিক সংখ্যা অথবা একটি জোড় অপরটি বিজোড় সংখ্যা হলেও সহ-মৌলিক হতে পারে। যেমনঃ ৮ এবং ৯। দুইটি জোড় সংখ্যা হলে তাদের মধ্যে সাধারণ উৎপাদক ২ থাকবে যা সহ-মৌলিক হবে না।


অর্থাৎ সহ-মৌলিক সংখ্যাদ্বয় ভিন্ন দুইটি সংখ্যা হলেও তারা একই সাথে একটি মৌলিক সংখ্যার মত আচরণ করে।


সহমৌলিক সংখ্যার কিছু সাধারণ উদাহরণ হল:

  • ৫ এবং ৭
  • ১১ এবং ১৩
  • ২ এবং ৯
  • ৩ এবং ৮
  • ৫ এবং ১২
avatar
+২ টি ভোট
মূলদ সংখ্যা কাকে বলে?

মূলদ সংখ্যা হল সেসব বাস্তব সংখ্যা যাদেরকে দুটি পূর্ণ সংখ্যার অনুপাত হিসেবে (শূন্য দিয়ে ভাগ করা ছাড়া) প্রকাশ করা যায়। মূলদ সংখ্যাকে দশমিক আকারেও প্রকাশ করা যায় এবং তা হয় সসীম ঘর দশমিক (যেমন: ১.২৯, ৫.৬৯৮৭, ৮.৯৭৯৮৭) অথবা পৌনঃপুনিক (recurrent) দশমিক (যেমন: ১.৬৩৬৩৬৩৬৩৬৩, ৪.৬৯৬৯৬৯৬৯৬৯, . ১০১১০১১০১১০১)।


মূলদ সংখ্যার সংজ্ঞাটি নিম্নরূপ:


কোন বাস্তব সংখ্যা p/q, যেখানে p এবং q উভয় পূর্ণ সংখ্যা, p ও q সহমৌলিক সংখ্যা এবং q ≠ 0, তাহলে p/q একটি মূলদ সংখ্যা।


উদাহরণস্বরূপ, ১, ২, ৩, ৪, ৫, ৬, ৭, ৮, ৯, ১০, ১১, ১২, ... ইত্যাদি সবই মূলদ সংখ্যা।


অমূলদ সংখ্যা হল সেসব বাস্তব সংখ্যা যাদেরকে দুটি পূর্ণ সংখ্যার অনুপাত হিসেবে প্রকাশ করা যায় না। অমূলদ সংখ্যার উদাহরণ হল পাই (π), ইর‍্যাটনেন্স (e), √2, √3, ... ইত্যাদি।


মূলদ সংখ্যাসমূহকে ℚ দ্বারা চিহ্নিত করা হয়।

avatar
+৩ টি ভোট
কনসেনট্রেটেড সোলার পাওয়ার মনে কি?
Concentrated solar power মনে কি? এটা কি সৌর বিদ্যুৎ? Concentrated solar power কিভাবে কাজ করে?
avatar
+২ টি ভোট
সনিক বুম (Sonic Boom) বলতে কি বুঝায়?
সনিক বুম (Sonic Boom) বলতে কি বুঝায়? এটা কিভাবে ঘটে?

২৭৫ টি প্রশ্ন

২৬৭ টি উত্তর

৩০ টি মন্তব্য

৪৩ জন সদস্য

এই মাসের সেরা সদস্যগন

  1. avatar
  2. avatar

সাম্প্রতিক ব্যাজ সমুহ

admin ১২ ৫৮ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
admin ১২ ৫৮ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
admin ১২ ৫৮ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
whoever ১৪ ৫৮ ২১৮ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
admin ১২ ৫৮ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
...