জ্যোতির্বিজ্ঞান - প্রশ্ন উত্তর

avatar
+৩ টি ভোট
জুপিটার বা বৃহস্পতি গ্রহকে ফেইল্ড স্টার বলা হয় কেন?

বৃহস্পতিকে ব্যর্থ তারকা বলার মূল কারণ হলো বৃহস্পতির মৌলিক গঠন একটি তারকার মতোই। স্টার গুলি হাইড্রোজেন এবং হিলিয়াম নিয়ে গঠিত হয়। স্টার গুলি নিউক্লিয়ার ফিউশন এর মাধ্যমে শক্তি উৎপন্ন করে। নিউক্লিয়ার ফিউশন প্রক্রিয়ায় হাইড্রোজেন হিলিয়াম এ রূপান্তরিত হয়। নিউক্লিয়ার ফিউশন এর জন্য অনেক উচ্চ চাপ এবং তাপের প্রয়োজন হয় যা বৃহস্পতির মধ্যে নেই। ফলে বৃহস্পতির মধ্যে নিউক্লিয়ার ফিউশন সম্ভব না হওয়ায় এটি তারার মত জ্বলতে পারে না।


নিউক্লিয়ার ফিউশন শুরু করতে যে পরিমাণ তাপ ও চাপের প্রয়োজন সে পরিমাণ তাপ ও চাপ উৎপন্ন করতে সর্বনিন্ম যে ভরের প্রয়োজন বৃহস্পতির ভর তার মাত্র শতকরা ১.২৫ ভাগ, যা বৃহস্পতির একটি নক্ষত্রে পরিণত হওয়ার জন্য অনেক কম। কিন্তু বৃহস্পতির কাছে এই ভর থাকলে এটি একটি তারকা হতে পারতো। তাই একে "ব্যর্থ তারকা" বা "ফেইলড স্টার" বলা হয়।

avatar
+২ টি ভোট
ব্ল্যাক হোলের আশেপাশে গ্রহে কাটানো ১ মিনিট পৃথিবীতে কতদিন বা বছর হবে?

আপনি যদি ব্ল্যাক হোলকে প্রদক্ষিণ করে এমন একটি গ্রহে থাকেন তবে ব্ল্যাক হোলের মহাকর্ষীয় ক্ষেত্রের কারণে সেখানে উল্লেখযোগ্য পরিমাণ সময় প্রসারণ ঘটবে। সময়ের প্রসারণ বা টাইম ডাইলেশন কিভাবে ঘটে সে বিষয়ে জানুন


আপনি একটি ব্ল্যাক হোলের মতো একটি অত্যন্ত ভারী বস্তুর যত কাছে থাকবেন, মহাকর্ষীয় ক্ষেত্র তত শক্তিশালী হবে এবং সময়ের প্রসারণ প্রভাব তত বেশি হবে। ফলস্বরূপ, ব্ল্যাকহোলের কাছে একজন পর্যবেক্ষকের জন্য সময় তার মহাকর্ষীয় প্রভাব থেকে দূরে থাকা ব্যক্তির তুলনায় অনেক ধীরে ধীরে চলবে।


একটি ব্ল্যাক হোলের কাছাকাছি সময়ের প্রসারণ সম্পর্কে ধারণা পেতে একটি অনুমানমূলক দৃশ্যকল্প বিবেচনা করা যাক। ধরুন আপনি একটি ব্ল্যাক হোলের পাশের একটি গ্রহে ১ মিনিট ব্যয় করেন এবং আমরা সময় প্রসারণ ফ্যাক্টর ১০ ধরে নিই। এর মানে হল সেই গ্রহে কাটানো প্রতি ১ মিনিটের জন্য, পৃথিবীতে ১০ মিনিট কেটে যাবে।


এটা মনে রাখা গুরুত্বপূর্ন যে যে ব্ল্যাক হোলের কাছে প্রকৃত সময় প্রসারণের প্রভাব ব্ল্যাক হোলের ভর, দূরত্ব এবং এর সাথে পর্যবেক্ষকের দূরত্বের মতো কারণগুলির উপর নির্ভর করে পরিবর্তিত হতে পারে। এখানে প্রদত্ত উদাহরণটি সময়ের প্রসারণের ধারণাটি ব্যাখ্যা করার জন্য একটি অনুমানমূলক দৃশ্যকল্প মাত্র।

avatar
+৩ টি ভোট
মানুষের সবচেয়ে দূরে পাঠানো স্পেসক্রাফট কোনটি?

মানব কতৃক এখন পর্যন্ত সবচেয়ে দূরে পাঠানো স্পেসক্রাফট হলো "ভয়েজার ওয়ান" (Voyager 1)। "ভয়েজার ওয়ান" বর্তমানে পৃথিবী থেকে প্রায় ২৩.৩ বিলিয়ন কিলোমিটার দূরে।


সৌরজগতের বাইরে কি আছে সেটা গবেষণা করার জন্য ৫ সেপ্টেম্বর ১৯৭৭ সালে নাসা ভয়েজার প্রোগ্রামের আওতায় এটিকে লঞ্চ করে। যা এই উত্তর টি লেখার সময় থেকে  ৪৫ বছর আগে।


এত বছরের যাত্রায় এটি পৃথিবীতে পাঠিয়েছে অগণিত অজানা মহাকাশ তথ্য এবং এখনও পাঠিয়ে যাচ্ছে।

avatar
+৪ টি ভোট
প্লুটোকে গ্রহ হিসেবে ধরা হয়না কেন?
প্লুটো সূর্যকে আবর্তনকালে অন্য একটি গ্রহের কক্ষপথে ঢুকে যাওয়ায় প্লুটোকে একটি পূর্ন গ্রহ হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা যায়না।

ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিয়ন (IAU) একটি পূর্ন গ্রহ সংজ্ঞায়িত করার জন্য তিনটি মানদণ্ড প্রদান করেছে। সেই মানদণ্ড গুলো হলো:
  1. একে সূর্যের চারপাশে ঘুরতে হবে।
  2. একে যথেষ্ট পরিমান ভারী হতে হবে যেন নিজের মাধ্যাকর্ষণের টানে এটি গোলাকার ধারন করতে পারে।
  3. এর কক্ষপথটি অন্যান্য গ্রহের কক্ষপথ হতে পৃথক হতে হবে। যদি দুটি বস্তুর কক্ষপথ পৃথক না হয় বা একটির কক্ষপথ অপরটির ভেতর ঢুকে পড়ে তাহলে কক্ষপথটি অপেক্ষাকৃত বেশী ভরের বস্তুটির বলে গণ্য হবে।

প্রথম শর্তটি প্লুটো নিঃসন্দেহে পূরণ করেছে। এটি সূর্যের দিকে প্রদক্ষিণ করছে। দ্বিতীয় শর্তওটিও এটি মেনে চলে। কিন্তু তৃতীয় শর্তটি পূরণ করেনা, কেননা এটি সূর্যের চারপাশে আবর্তনকালে নেপচুনের কক্ষপথে ঢুকে পড়ে, এই অবস্থায় সূর্য থেকে প্লুটোর দুরত্ব সূর্য থেকে নেপচুনের দূরত্বের তুলনায় কম থাকে। আর যেহেতু নেপচুনের তুলনায়  প্লুটোর ভর কম তাই কক্ষপথটি নেপচুনের বলে বিবেচিত হয় এবং এখানে নেপচুন গ্রহ হিসেবে বিবেচিত হয়।

তাই প্লুটো পূর্ন গ্রহের সবগুলো শর্ত পূরণ না করায় ২০০৬ সালের আগস্টে ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল ইউনিয়ন (IAU) প্লুটোর মর্যাদা গ্রহ থেকে "বামন গ্রহ"-এ নামিয়ে আনে। তাই এখন আমাদের আগে নয়টি গ্রহের পরিবর্তে আটটি গ্রহ রয়েছে।
avatar
+৩ টি ভোট
স্পেসে থাকা বেশিরভাগ অবজেক্ট যেমন তারকা, গ্রহ, উপগ্রহ এগুলো গোলাকার হয় কেন?
স্পেস এ থাকা গ্রহ, উপগ্রহ, নক্ষত্র কিংবা আলাদা সকল অবজেক্ট গোলাকার কিংবা থ্রি স্ফেরিক্যাল হওয়ার অন্যতম কারণ হল গ্রাভিটি।

গ্রাভিটি একটি গ্রহে থাকা প্রত্যেকটা জিনিসকে কেন্দ্রের দিকে টানে। এর কারনে মহাকাশে থাকা যেসব বস্তুর যথেষ্ট পরিমাণ গ্রাভিটি আছে সেগুলোর মাস সবদিকে যথাসম্ভব সমানভাবে ডিস্ট্রিবিউট হয়। এভাবেই মূলত মহাকাশে থাকা বেশিরভাগ বস্তু গোলাকার হয়।
avatar
+৩ টি ভোট
দিন ও রাতের তাপমাত্রার সবচেয়ে বেশি পার্থক্য দেখা যায় সৌরজগতের কোন গ্রহে?

বুধ গ্রহে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা এর ব্যবধান সবচেয়ে বেশি।


বুধ গ্রহে গ্রীষ্মকালীন সময়ে থাক গ্রহটি সূর্যের সবচেয়ে কাছে থাকাকালীন সময়ে এর দিনের তাপমাত্রা বেড়ে দাঁড়ায় ৪৬৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস অথবা  ৮৭০ ডিগ্রি ফারেনহাইট। অন্যদিকে রাতের বেলা তাপমাত্রা -১৮৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস অথবা -৩৬৩ ডিগ্রি ফারেনহাইট এ নেমে যায়। 

এরকম তাপমাত্রার পার্থকের অন্যতম কারণ হলো বুধ গ্রহে অ্যাটমোস্ফিয়ার বা বায়ুমণ্ডল অনেক পাতলা যা তাপমাত্রা ধরে রাখতে পারে না।

বুধ গ্রহ তার নিজ অক্ষে অনেক কম গতিতে ঘুরে। বুধ গ্রহের একটা সম্পূর্ণ ঘূর্ণন সম্পন্ন হতে সময় লাগে পৃথিবীর ৫৯ দিন। অথচ এই গ্রহটি সূর্যেরই চারপাশে ঘুরে পৃথিবীর ৮৮ দিনের সময়ে। যেহেতু বুধ গ্রহ নিজ অক্ষে ধীরে ধীরে ঘুরে সেক্ষেত্রে বলা যায় তাপমাত্রার পার্থক্যের এটাও একটি কারণ হতে পারে।
avatar
+৩ টি ভোট
আমাদের সৌরজগতের সবচেয়ে উত্তপ্ত গ্রহ কোনটি এবং কেন?

শুক্র গ্রহ (ভেনাস Venus) হলো হলো সৌরজগতের সবচেয়ে উত্তপ্ত গ্রহ।


দুরত্বের দিক থেকে সুর্যের সবচেয়ে কাছের গ্রহ হলো বুধ, সেই হিসেবে বুধ সবচেয়ে বেশি গরম গ্রহ হওয়ার কথা রাইট, কিন্তু সেটা না হয়ে শুক্র গ্রহের সবচেয়ে উত্তপ্ত হওয়ার কারন কি? এর অন্যতম কারন হলো শুক্র গ্রহের ঘন বায়ুমন্ডল। শুক্র গ্রহের বায়ুমন্ডলের ৯৬% ই শুধু কার্বন ডাই-অক্সাইড। কার্বন ডাই-অক্সাইড হলো একটি গ্রিন হাউস গ্যাস। ফল স্বরুপ, শুক্রের অ্যাটমোস্ফিয়ার থেকে কোন তাপ বের হতে পারে নাহ।


শুক্র গ্রহের সার্ফেস তাপমাত্রা প্রায় ৯০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট যা সেলসিয়াসে ৪৭৫ ডিগ্রি। এই পরিমান তাপমাত্রা সীসা কে গলিয়ে দিতে সক্ষম। শুক্র গ্রহ বুধ এর থেকেও বেশি উত্তপ্ত। কারন, বুধ এর অ্যাটমোস্ফিয়ার খুবই পাতলা যা কিনা তুলনা মূলক ভাবে খুব বেশি পরিমানে তাপ ধরে রাখতে পারেনা। 

একটা প্রশ্ন করে নিজে জানুন অন্যকে জানতে সহায়তা করুন

২৬৯ টি প্রশ্ন

২৬১ টি উত্তর

২৯ টি মন্তব্য

৩৮ জন সদস্য

এই মাসের সেরা সদস্যগন

    Nobody yet this month.

    সাম্প্রতিক ব্যাজ সমুহ

    alaminhossain ১৯ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
    easoyeb ১৩ ৫৩ ২২০ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
    whoever ১৩ ৪৯ ২০৮ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
    ShafiqulIslam একটি ব্যাজ পেয়েছেন
    admin ৫০ একটি ব্যাজ পেয়েছেন
    ...